১০:৪৮ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিবালয়ের সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল ইসলামের ইন্তেকাল

  • নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট : ০৩:১৬:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪
  • 213

আকাশ বিডি নিউজ
শিবালয় উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক সাবেক ফুটবলার সাইফুল ইসলাম খান (৬২) রবিবার দিবাগত রাতে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি মৃত্যুকালে মা, স্ত্রী, দু’কন্যা ও এক পুত্র রেখে যান। তার বাড়ি শিবালয় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী তেওতা গ্রামে।
জানা গেছে, সাইফুল ইসলাম দীর্ঘ ৪ দশকের বেশি সময় যাবৎ সাংবাদিকতা পেশায় ছিলেন। তিনি ঢাকায় জাতীয় দৈনিক প্রভাত, দৈনিক মিল্লাত, আজকের প্রত্যাশা পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করেছেন।মৃত্যুকালে তিনি দৈনিক ভোরের দর্পন পত্রিকার মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়া, তিনি ঐতিহ্যবাহী তেওতার সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘নজরুল-প্রমীলা সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী’ এর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক।এছাড়া, তিনি ছাত্রজীবন থেকেই বিভিন্ন খেলাধুলা, সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজন, অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোসহ নানা ধরণের কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন।
সাইফুল খান আশির দশকে একজন জনপ্রিয় ফুটবল খেলোয়ার হিসেবে পরিচিত ছিলেন। দীর্ঘদিন তিনি সুনামের সাথে ফুটবল খেলেছেন। এছাড়া, তিনি সকলের কাছে সহজ-সরল ও সাদা মনের মানুষ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তার মধ্যে অহংকার ছিল না। তিনি সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে মিশতেন। তিনি স্থানীয়ভাবে নজরুলের নানা বিষয় নিয়ে গবেষণামূলক আলোচনা করতেন।
সোমবার সাইফুল ইসলামের নিজ গ্রাম তেওতা ঈদগাহ মাঠে নামাজে জানাযা শেষে জমদুয়ারা কেন্দ্রীয় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি মানিকগঞ্জ জেলা শাখা, শিবালয় উপজেলা প্রেসক্লাব ও শিবালয় উপজেলা সাংবাদিক সমিতিসহ স্থানীয় সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঢাকা আরিচা মহাসড়কের টেপড়া বাসস্ট্যান্ডে যাত্রী ছাউনি ময়লার ডাস্টবিনে

শিবালয়ের সিনিয়র সাংবাদিক সাইফুল ইসলামের ইন্তেকাল

আপডেট : ০৩:১৬:৩৫ অপরাহ্ন, সোমবার, ১ এপ্রিল ২০২৪

আকাশ বিডি নিউজ
শিবালয় উপজেলা প্রেসক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সিনিয়র সাংবাদিক সাবেক ফুটবলার সাইফুল ইসলাম খান (৬২) রবিবার দিবাগত রাতে ইন্তেকাল করেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। তিনি মৃত্যুকালে মা, স্ত্রী, দু’কন্যা ও এক পুত্র রেখে যান। তার বাড়ি শিবালয় উপজেলার ঐতিহ্যবাহী তেওতা গ্রামে।
জানা গেছে, সাইফুল ইসলাম দীর্ঘ ৪ দশকের বেশি সময় যাবৎ সাংবাদিকতা পেশায় ছিলেন। তিনি ঢাকায় জাতীয় দৈনিক প্রভাত, দৈনিক মিল্লাত, আজকের প্রত্যাশা পত্রিকার স্টাফ রিপোর্টার হিসেবে কাজ করেছেন।মৃত্যুকালে তিনি দৈনিক ভোরের দর্পন পত্রিকার মানিকগঞ্জ জেলা প্রতিনিধি হিসেবে কর্মরত ছিলেন। এছাড়া, তিনি ঐতিহ্যবাহী তেওতার সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ‘নজরুল-প্রমীলা সাংস্কৃতিক গোষ্ঠী’ এর প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক।এছাড়া, তিনি ছাত্রজীবন থেকেই বিভিন্ন খেলাধুলা, সামাজিক অনুষ্ঠান আয়োজন, অসহায় মানুষের পাশে দাড়ানোসহ নানা ধরণের কর্মকান্ডে জড়িত ছিলেন।
সাইফুল খান আশির দশকে একজন জনপ্রিয় ফুটবল খেলোয়ার হিসেবে পরিচিত ছিলেন। দীর্ঘদিন তিনি সুনামের সাথে ফুটবল খেলেছেন। এছাড়া, তিনি সকলের কাছে সহজ-সরল ও সাদা মনের মানুষ হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তার মধ্যে অহংকার ছিল না। তিনি সব শ্রেণি-পেশার মানুষের সাথে মিশতেন। তিনি স্থানীয়ভাবে নজরুলের নানা বিষয় নিয়ে গবেষণামূলক আলোচনা করতেন।
সোমবার সাইফুল ইসলামের নিজ গ্রাম তেওতা ঈদগাহ মাঠে নামাজে জানাযা শেষে জমদুয়ারা কেন্দ্রীয় কবরস্থানে তাকে দাফন করা হয়। তার মৃত্যুতে মানিকগঞ্জ প্রেসক্লাব, বাংলাদেশ সাংবাদিক সমিতি মানিকগঞ্জ জেলা শাখা, শিবালয় উপজেলা প্রেসক্লাব ও শিবালয় উপজেলা সাংবাদিক সমিতিসহ স্থানীয় সাংবাদিক, রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক নেতৃবৃন্দ গভীর শোক ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন।