১০:৩১ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

শিবালয়ের পাটুরিয়ায় ডুবে যাওয়া ফেরির দ্বিতীয় সহকারি মাস্টার হুমায়ুনের লাশ উদ্ধার

  • নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট : ১১:৫৫:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৪
  • 145

মানিকগঞ্জ থেকে আকাশ চৌধুরী
৬ষ্ঠ দিনে অব্যাহত উদ্ধার অভিযানে খুঁজে পাওয়া গেল ডুবে যাওয়া ফেরির দ্বিতীয় মাস্টার হুমায়ুন কবিরের লাশ। ২২ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে পাটুরিয়া ঘাটের ভাটিতে হরিরামপুর উপজেলার বাহাদুরপুর নামক স্থানে পদ্মা নদীতে ভেসে থাকা অবস্থায় তার লাশটিকে উদ্ধার করা হয়। পাটুরিয়া ঘাটে হুমায়ুনের স্বজনদের আহাজারীতে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। অপরদিকে পাটুরিয়া ৫ নং ফেরিঘাট এ পদ্মায় ডুবে যাওয়া ফেরিকে ২৫০ টন উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয় ১৪৪ ঘন্টা অভিযানের পর ফেরির একটি অংশ জাগিয়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে। কিন্তু ডুবন্ত স্থানে ভয়ানক জটিলতা থাকায় ডুবুরিরা বলছেন শীতকালে প্রবল স্রোত আর প্রচন্ড হার কাঁপানো শীতে ৫০ ফুট পদ্মার পানির তলদেশে একটি অংশ ২-৩ ফুট বালুতে আটকে থাকায় ইয়ার লেফটিং ব্যাগ দিয়ে বাতাস প্রবেশ করে যদিও এক অংশ জাগিয়ে রাখা সম্ভব হলেও বাকি অংশ বালুতে আটকে থাকা অংশ বালু অপসরণ করে পুনরায় বাতাস ঢুকিয়ে আটকে যাওয়া অংশ টুকু তুলতে পারলেই মাত্র ১০ মিনিট সময়ের মধ্যেই ফেরিটিকে টেনে তুলে ঘাটের দিকে ভাসিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে । তবে ফেরিটিকে জাগিয়ে তুলতে উদ্ধার তৎপরতায় প্রায় ৮০ শতাংশ সফলতার মুখ দেখা দিয়েছে। সন্ধ্যা বা রাতের মধ্যেই যেকোনো সময়ে টান দিলে ফেরিটি দুর্ঘটনাস্থল থেকে কুলে ভিরানো সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। অপর এক ডুবুরি বলেন ডুবন্ত ফেরির মধ্যে জ্যাম থাকার কারণে প্রবেশ করা যাচ্ছে না।অপরদিকে পর্যবেক্ষন জাহাজ ঝিনাই-১ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে বালু অপসারণ করার জোর প্রচেষ্টায় অগ্রসর হচ্ছে।এছাড়া এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গত বুধবার দুর্ঘটনার দিন থেকে আজ ২২ জানুয়ারি ষষ্ঠ দিনে একটি লাশ ও একটি ট্রাক উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এ নিয়ে ৯ টি ট্রাকের মধ্যে ৫টি ট্রাক উদ্ধার করা হয়েছে। ফেরি ও ট্রাক উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঢাকা আরিচা মহাসড়কের টেপড়া বাসস্ট্যান্ডে যাত্রী ছাউনি ময়লার ডাস্টবিনে

শিবালয়ের পাটুরিয়ায় ডুবে যাওয়া ফেরির দ্বিতীয় সহকারি মাস্টার হুমায়ুনের লাশ উদ্ধার

আপডেট : ১১:৫৫:১০ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৪

মানিকগঞ্জ থেকে আকাশ চৌধুরী
৬ষ্ঠ দিনে অব্যাহত উদ্ধার অভিযানে খুঁজে পাওয়া গেল ডুবে যাওয়া ফেরির দ্বিতীয় মাস্টার হুমায়ুন কবিরের লাশ। ২২ জানুয়ারি সোমবার দুপুরে পাটুরিয়া ঘাটের ভাটিতে হরিরামপুর উপজেলার বাহাদুরপুর নামক স্থানে পদ্মা নদীতে ভেসে থাকা অবস্থায় তার লাশটিকে উদ্ধার করা হয়। পাটুরিয়া ঘাটে হুমায়ুনের স্বজনদের আহাজারীতে আকাশ বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে। অপরদিকে পাটুরিয়া ৫ নং ফেরিঘাট এ পদ্মায় ডুবে যাওয়া ফেরিকে ২৫০ টন উদ্ধারকারী জাহাজ প্রত্যয় ১৪৪ ঘন্টা অভিযানের পর ফেরির একটি অংশ জাগিয়ে তুলতে সক্ষম হয়েছে। কিন্তু ডুবন্ত স্থানে ভয়ানক জটিলতা থাকায় ডুবুরিরা বলছেন শীতকালে প্রবল স্রোত আর প্রচন্ড হার কাঁপানো শীতে ৫০ ফুট পদ্মার পানির তলদেশে একটি অংশ ২-৩ ফুট বালুতে আটকে থাকায় ইয়ার লেফটিং ব্যাগ দিয়ে বাতাস প্রবেশ করে যদিও এক অংশ জাগিয়ে রাখা সম্ভব হলেও বাকি অংশ বালুতে আটকে থাকা অংশ বালু অপসরণ করে পুনরায় বাতাস ঢুকিয়ে আটকে যাওয়া অংশ টুকু তুলতে পারলেই মাত্র ১০ মিনিট সময়ের মধ্যেই ফেরিটিকে টেনে তুলে ঘাটের দিকে ভাসিয়ে নিয়ে যাওয়া সম্ভব হবে । তবে ফেরিটিকে জাগিয়ে তুলতে উদ্ধার তৎপরতায় প্রায় ৮০ শতাংশ সফলতার মুখ দেখা দিয়েছে। সন্ধ্যা বা রাতের মধ্যেই যেকোনো সময়ে টান দিলে ফেরিটি দুর্ঘটনাস্থল থেকে কুলে ভিরানো সম্ভব হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন। অপর এক ডুবুরি বলেন ডুবন্ত ফেরির মধ্যে জ্যাম থাকার কারণে প্রবেশ করা যাচ্ছে না।অপরদিকে পর্যবেক্ষন জাহাজ ঝিনাই-১ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে বালু অপসারণ করার জোর প্রচেষ্টায় অগ্রসর হচ্ছে।এছাড়া এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত গত বুধবার দুর্ঘটনার দিন থেকে আজ ২২ জানুয়ারি ষষ্ঠ দিনে একটি লাশ ও একটি ট্রাক উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। এ নিয়ে ৯ টি ট্রাকের মধ্যে ৫টি ট্রাক উদ্ধার করা হয়েছে। ফেরি ও ট্রাক উদ্ধার কাজ অব্যাহত রয়েছে।