১০:৫০ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

দৌলতপুরে জমির আইলের ঘাস কাটা কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ১

  • নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট : ১১:০৭:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩
  • 134

আকাশ বিডি নিউজ
দৌলতপুর থেকে শাহ আলম
দৌলতপুর উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নের বিলকালিদহ গ্রামে জমির আইলের ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের চাঁন মিয়ার হাতে ফনি মিয়া (৬৭) মমান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানাগেছে- কালিদহ গ্রামের ফনি মিয়া দুপুরে খাবার খেয়ে তার নিজ জমি কান্দা চকে গরুর ঘাস কাটতে গিয়ে বিকাল ৩ঘটিকার সময় তার পাশের জমির মালিক বিল কালিদহ গ্রামের ফজল মিয়ার ছেলে চাঁন মিয়া (৫৫)সাথে আইলের জমির ঘাস কাটা নিয়ে ।কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া তার নাকে ঘুসি দিয়ে ফেলে দেয় এবং তার হাতে থাকা কাচি দিয়ে তাকে আঘাত করলে সে মাটিতে লুটে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যায় । পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলিয়া বাজারে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ওখানেই তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

এ বিষয়ে মৃত ফনির স্ত্রী ছাহেরা বেগম( ৬০ )বলেন আমার স্বামী গরুর জন্য আমার জমিতে ঘাস কাটতে লাগছিলেন। ইতিমধ্যে চাঁন মিয়া ঘাস কাটতে বাধা দেয় ।বাধা দেওয়ার এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে তর্ক বিতর্ক হয়। পরে আমার স্বামীকে চাঁন মিয়া নাকে ঘুষি মারে এবং সে মাটিতে পড়ে যায়। তারপর তার হাতে থাকা কাচি দিয়ে তাকে আঘাত করলে আমার স্বামী অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তারপরে স্থানীয়রা তাকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন । আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি ।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার আদিত্য বলেন- কালিদহ গ্রামে ফনি এবং চাঁন মিয়ার সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা কাটির এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া তাকে নাকে ঘুসি মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। ফেলে দেওয়ার সাথে সাথে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে মানিকগঞ্জ সদর হসপিটালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাথমিক তদন্ত শেষ করে তাকে ময়না তদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে । ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে বিস্তারিত বোঝা যাবে ।তবে বিষয়টি নিয়ে তার স্বজনরা অভিযোগ করেছে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঢাকা আরিচা মহাসড়কের টেপড়া বাসস্ট্যান্ডে যাত্রী ছাউনি ময়লার ডাস্টবিনে

দৌলতপুরে জমির আইলের ঘাস কাটা কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে নিহত ১

আপডেট : ১১:০৭:৫৪ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২৯ ডিসেম্বর ২০২৩

আকাশ বিডি নিউজ
দৌলতপুর থেকে শাহ আলম
দৌলতপুর উপজেলার কলিয়া ইউনিয়নের বিলকালিদহ গ্রামে জমির আইলের ঘাস কাটাকে কেন্দ্র করে একই গ্রামের চাঁন মিয়ার হাতে ফনি মিয়া (৬৭) মমান্তিক মৃত্যু হয়েছে।
মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া বিরাজ করছে।

ঘটনাস্থলে গিয়ে জানাগেছে- কালিদহ গ্রামের ফনি মিয়া দুপুরে খাবার খেয়ে তার নিজ জমি কান্দা চকে গরুর ঘাস কাটতে গিয়ে বিকাল ৩ঘটিকার সময় তার পাশের জমির মালিক বিল কালিদহ গ্রামের ফজল মিয়ার ছেলে চাঁন মিয়া (৫৫)সাথে আইলের জমির ঘাস কাটা নিয়ে ।কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া তার নাকে ঘুসি দিয়ে ফেলে দেয় এবং তার হাতে থাকা কাচি দিয়ে তাকে আঘাত করলে সে মাটিতে লুটে পড়ে অজ্ঞান হয়ে যায় । পরে তাকে স্থানীয়রা উদ্ধার করে কলিয়া বাজারে ডাক্তারের কাছে নিয়ে গেলে ওখানেই তাকে মৃত্যু ঘোষণা করে।

এ বিষয়ে মৃত ফনির স্ত্রী ছাহেরা বেগম( ৬০ )বলেন আমার স্বামী গরুর জন্য আমার জমিতে ঘাস কাটতে লাগছিলেন। ইতিমধ্যে চাঁন মিয়া ঘাস কাটতে বাধা দেয় ।বাধা দেওয়ার এক পর্যায়ে দুজনের মধ্যে তর্ক বিতর্ক হয়। পরে আমার স্বামীকে চাঁন মিয়া নাকে ঘুষি মারে এবং সে মাটিতে পড়ে যায়। তারপর তার হাতে থাকা কাচি দিয়ে তাকে আঘাত করলে আমার স্বামী অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যায়। তারপরে স্থানীয়রা তাকে মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন । আমি এর সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি ।

এ বিষয়ে দৌলতপুর থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সুমন কুমার আদিত্য বলেন- কালিদহ গ্রামে ফনি এবং চাঁন মিয়ার সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা কাটির এক পর্যায়ে চাঁন মিয়া তাকে নাকে ঘুসি মেরে মাটিতে ফেলে দেয়। ফেলে দেওয়ার সাথে সাথে সে অজ্ঞান হয়ে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে মানিকগঞ্জ সদর হসপিটালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে খবর পেয়ে তাৎক্ষণিক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে প্রাথমিক তদন্ত শেষ করে তাকে ময়না তদন্তের জন্য মানিকগঞ্জ সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে । ময়নাতদন্ত রিপোর্ট আসলে বিস্তারিত বোঝা যাবে ।তবে বিষয়টি নিয়ে তার স্বজনরা অভিযোগ করেছে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।