১০:৩৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

পিরোজপুর বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয়ে প্রতারনার অভিযোগে যুবককে গণপিটুনি দেয়

  • নিউজ ডেস্ক
  • আপডেট : ০৯:০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪
  • 65

পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয় দেওয়া রিয়াজুল ইসলাম নামে এক প্রতারককে গণধোলাই দিয়েছে প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীরা।প্রতারকের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার বাড়ি বাবুগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম ভুতুরদিয়া গ্রামে।
(৯ জানুয়ারি) দুপুরে মঠবাড়িয়া পৌর শহর এলাকা থেকে তাকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়। থানার ওসি শফিকুল ইসলাম প্রতারককে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার জন্য এলাকাবাসীদের নির্দেশ দেন।

জানা গেছে, উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের দেবিপুর এলাকার সালাম হাওলাদারের নিকট থেকে ওই প্রতারক ৮ হাজার ৫ শত টাকা নেয়। মিটার পরিবর্তনের কথা বলে ২ হাজার ৫ শত টাকা এবং দুটি বিদ্যুত বিল পরিশোধ বাবদ ৬ হাজার টাকা নেয় সে।টাকা নেওয়ার জন্য ০১৩০১৯৬৯৫২৪ মোবাইল নাম্বারটি ব্যবহার করে সে।গ্রাহককে মিটার পরিবর্তন করে দিতে না পারায় বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করে প্রতারনার বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়।পরে ভেচকি এলাকায় প্রতারনা করতে গিয়ে ওই প্রতারক এলাকাবাসীর গণপিটুনির শিকার হয়।তাকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুৎ মঠবাড়িয়া জোনাল অফিসের ম্যানেজার মোতালেব হোসেন জানান,বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করতে গিয়ে গ্রাহকদের নিকট আটক ওই প্রতারককে চিকিৎসার পর থানায় দেওয়া হবে। বিষয়টি থানায় অবগত করা হয়েছে।

ট্যাগস :
জনপ্রিয়

ঢাকা আরিচা মহাসড়কের টেপড়া বাসস্ট্যান্ডে যাত্রী ছাউনি ময়লার ডাস্টবিনে

পিরোজপুর বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয়ে প্রতারনার অভিযোগে যুবককে গণপিটুনি দেয়

আপডেট : ০৯:০৯:০৫ পূর্বাহ্ন, বুধবার, ১০ জানুয়ারী ২০২৪

পিরোজপুর প্রতিনিধি
পিরোজপুরের মঠবাড়িয়া উপজেলায় বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয় দেওয়া রিয়াজুল ইসলাম নামে এক প্রতারককে গণধোলাই দিয়েছে প্রতারণার শিকার ভুক্তভোগীরা।প্রতারকের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী তার বাড়ি বাবুগঞ্জ উপজেলার পশ্চিম ভুতুরদিয়া গ্রামে।
(৯ জানুয়ারি) দুপুরে মঠবাড়িয়া পৌর শহর এলাকা থেকে তাকে আটক করে থানায় নেওয়া হয়। থানার ওসি শফিকুল ইসলাম প্রতারককে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার জন্য এলাকাবাসীদের নির্দেশ দেন।

জানা গেছে, উপজেলার মিরুখালী ইউনিয়নের দেবিপুর এলাকার সালাম হাওলাদারের নিকট থেকে ওই প্রতারক ৮ হাজার ৫ শত টাকা নেয়। মিটার পরিবর্তনের কথা বলে ২ হাজার ৫ শত টাকা এবং দুটি বিদ্যুত বিল পরিশোধ বাবদ ৬ হাজার টাকা নেয় সে।টাকা নেওয়ার জন্য ০১৩০১৯৬৯৫২৪ মোবাইল নাম্বারটি ব্যবহার করে সে।গ্রাহককে মিটার পরিবর্তন করে দিতে না পারায় বিদ্যুৎ অফিসে যোগাযোগ করে প্রতারনার বিষয়টি এলাকায় জানাজানি হয়।পরে ভেচকি এলাকায় প্রতারনা করতে গিয়ে ওই প্রতারক এলাকাবাসীর গণপিটুনির শিকার হয়।তাকে মঠবাড়িয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ভর্তি করা হয়েছে।

এ ব্যাপারে পল্লী বিদ্যুৎ মঠবাড়িয়া জোনাল অফিসের ম্যানেজার মোতালেব হোসেন জানান,বিদ্যুৎ অফিসের লোক পরিচয় দিয়ে প্রতারনা করতে গিয়ে গ্রাহকদের নিকট আটক ওই প্রতারককে চিকিৎসার পর থানায় দেওয়া হবে। বিষয়টি থানায় অবগত করা হয়েছে।